পুজোর আগেই ঢুকবে এই ১০ টি প্রকল্পের টাকা, জানুন বিস্তারিত

0
19

West Bengal govt schemes list 2023: দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণে দুর্গাপুজোর আনন্দে যাতে টাকার ঘাটতি না দেখা দেয়, সেই কারণে এই ঘাটতি মেটানোর চেষ্টা করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের অর্থ দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে, পুজোর আগেই ১০ টি প্রকল্পের নগদ টাকা সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্কে পৌঁছে যাবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চলতি মাসেই সরকারি প্রকল্পগুলির টাকা প্রত্যেকের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি ঢোকা শুরু হয়ে যাবে। কোন কোন প্রকল্পের টাকা চলতি মাসে দেওয়া হবে, কত টাকা করে সাধারণ মানুষের ব্যাংক একাউন্টে ঢুকবে ইত্যাদি বিষয়গুলি আজ এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তুলে ধরব। 

 

১) লক্ষ্মীর ভান্ডারঃ 

রাজ্যের সাধারণ গৃহস্থ পরিবারের বউদের জন্য এই লক্ষ্মীর ভান্ডার। প্রতিমাসে এই স্কীমের অধীনে ৫০০ থেকে ১ হাজার টাকা করে গৃহ বধূদের একাউন্টে ঢুকে যায়। পুজোর আগে এই প্রকল্পের টাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

 

২) লোকপ্রসার প্রকল্পঃ 

এই প্রকল্পের টাকা রাজ্যের লোকশিল্পীদের অ্যাকাউন্টে দেওয়া হয়ে থাকে। এর আওতায় লোকশিল্পীরা প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা করে ভাতা পেয়ে থাকেন। পুজোর আগে এই প্রকল্পের টাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

 

৩) কৃষক বন্ধু প্রকল্পঃ  

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের সুবিধা রাজ্যের কৃষকরা পেয়ে থাকেন। ন্যূনতম ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী কৃষকরা ২ হাজার টাকা থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত আর্থিক অনুদান পেয়ে থাকেন। পুজোর আগে এই প্রকল্পের টাকা কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে।

 

৪) জাগো প্রকল্পঃ  

রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর পুরুষ ও মহিলারা এই প্রকল্পের দরুন ৫ হাজার টাকা করে অনুদান পেয়ে থাকেন। এই টাকা দিয়ে ব্যবসা ও নিজের পায়ে দাড়াতে সাহায্য করে। পুজোর আগে এই প্রকল্পের টাকা প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে।

 

৫) বার্ধক্য ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা ও বিধবা ভাতাঃ    

এই তিনটি স্কীমের আওতায় রাজ্যের প্রতিটি জেলার বয়স্করা, বিধবার আর প্রতিবন্ধী মানুষেরা প্রতি মাসে নগদ ১ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান পেয়ে থাকেন। নতুন করে ক্ষমতায় আশার পর মুখ্যমন্ত্রী এই যোজনা গুলো চালু করেন। আশা করা যাচ্ছে পুজোর আগেই এই প্রকল্পগুলির টাকা প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে, কিন্তু পুজোর আগে যদি এই তিনটি প্রকল্পের টাকা না ঢোকে তাহলে পুজোর পর ১ মাসের মধ্যেই প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে এই তিনটি প্রকল্পের টাকা ঢুকে যাবে বলে আশ্বাস দিয়েছে রাজ্যের অর্থ দপ্তর। 

See also  ই-শ্রম কার্ড থাকলে, প্রতিমাসে ৫০০/- টাকা পাবেন.. ভরণ পোষন যোজনা 2023

 

৬) কৃষকদের বার্ধক্য ভাতাঃ 

নির্দিষ্ট বয়সের পর কৃষকদের এই বার্ধক্য ভাতা দেওয়া হয়ে থাকে। এই প্রকল্পের আওতায় তারা প্রতি মাসে নগদ ১ হাজার টাকা করে ভাতা পেয়ে থাকেন। এতে শেষ বয়সে কৃষক বন্ধুদের আর্থিক সাহায্য হয়। পুজোর আগে এই প্রকল্পের টাকা প্রত্যেকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে।

 

তবে উপরোক্ত Govt Schemes প্রকল্পগুলির টাকা ছাড়াও নিন্মোক্ত প্রকল্পে যারা আবেদন করেছেন তাদের ও টাকা চলতি মাসেই ব্যাংক একাউন্টে ঢুকে যাবে। যেমন- 

পুরোহিতদের ভাতা
ইমাম ভাতা
নির্মাণ শ্রমিকদের ভাতা
চা শিল্প শ্রমিকদের ভাতা

তবে এবারের দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে বিভিন্ন প্রকল্প তথা Govt Schemes এ যারা আবেদন করবেন, তাদের পুজোর আগে টাকা ঢুকবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here