AdBlock Detected

It looks like you're using an ad-blocker!

Our team work realy hard to produce quality content on this website and we noticed you have ad-blocking enabled.

চালু হচ্ছে নতুন প্রকল্প “দুয়ারে শাড়ি প্রকল্প”! কি কি সুবিধা পাবেন?

Duware Sari Prokolpo: এতদিন সাধারণ মানুষের সুবিধার জন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে চালু করা হয়েছে দুয়ারে সরকার প্রকল্প এবং দুয়ারে রেশন প্রকল্প। যেখান থেকে রাজ্যের মানুষরা বিভিন্ন রকম সুবিধা নিয়ে থাকেন। তবে এবার রাজ্য সরকারের তরফ থেকে নতুন একটি উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পুজোর আগেই চালু হচ্ছে দুয়ারে শাড়ি প্রকল্প। এই প্রকল্পে আবেদন করলে আপনারা কম দামে জামা কাপড় কিনতে পারবেন। আজকের এই প্রতিবেদনে জানিয়ে দেবো, কোন জেলায় এই প্রকল্প চালু হচ্ছে, কিভাবে আবেদন করতে হবে, কারা কারা আবেদন করতে পারবেন এবং কি কি সুবিধা পাবেন ইত্যাদি বিষয়গুলি। 

 

কেন নেওয়া হয়েছে এই কর্মসূচী? 

বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপুজোর আর বেশি দেরি নেই। পুজো মানেই কেনাকাটা, পুজো মানেই নতুন পোশাক। কিন্তু এরকম অনেক মানুষ রয়েছেন যাদের পক্ষে প্রতি বছর পূজোয় নতুন পোশাক পরা বা কেনা সম্ভব হয়ে ওঠে না। সেই সমস্ত দুস্থ মানুষদের কথা ভেবে নতুন কর্মসূচি চালু করার চিন্তাভাবনা নিয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। যার নাম হলো দুয়ারে শাড়ি প্রকল্প। এই কর্মসূচিতে দুয়ারে শাড়ি বিক্রি করবে রাজ্য সরকার। বাজার দর থেকে তুলনামূলক কম দামে সেখান থেকে শাড়ি কিনতে পারবেন সাধারণ মানুষ। মূলত আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের কথা ভেবে এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলে মন্ত্রী জানিয়েছেন।

 

কিভাবে চলবে এই কর্মসূচি? 

দুয়ারে সরকারের মতই বিভিন্ন এলাকায় এলাকায় গিয়ে বস্ত্র বিক্রির চিন্তা ভাবনা করা হয়েছে। এর জন্য থাকবে ভ্রাম্যমান গাড়ি। শাড়ি ছাড়াও এই গাড়িতে পাওয়া যাবে লুঙ্গি, ধুতি, গামছা সহ অন্যান্য বস্ত্র। মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন পূর্ব বর্ধমান এই কর্মসূচি চালু করা হবে। বিভিন্ন এলাকার মোড়ে এই ভ্রাম্যমান গাড়ি ঘুরে বেড়াবে। সেখান থেকে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষজন শাড়ি এবং অন্যান্য বস্ত্র কিনতে পারবেন। দুঃস্থ মানুষদের নাগালের মধ্যে যাতে দাম থাকে তার জন্য ইতিমধ্যেই কত দামের মধ্যে বস্ত্র বিক্রি করা হবে তা ধার্য করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে এই সমস্ত শাড়ি বা বস্ত্র ৭০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে বিক্রি করা হবে। তবে তার ঊর্ধ্বেও বেশ কিছু বস্ত্র পাওয়া যাবে। 

See also  লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের নতুন পোর্টাল,অনলাইন সব এখন! টাকা চেক থেকে সবকিছু দেখুন

মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, আর্থিক সমস্যার কারণে যে সমস্ত মানুষ পুজোর সময় নতুন জামা কাপড় বা পোশাক কিনতে পারেন না তাদের কথা ভেবেই এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে পূর্বস্থলী বিধানসভা কেন্দ্রের রাস্তার মোড় থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে শাড়ি বিক্রি হবে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই কর্মসূচি চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মন্ত্রী। 

প্রসঙ্গত রাজ্যের মানুষের সুবিধার্থে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি চালাচ্ছে প্রশাসন। সেক্ষেত্রে বাড়ির কাছে বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্পের সুবিধার জন্য আবেদন করতে পারছে সাধারণ মানুষ। ইতিমধ্যে এর ফলে রাজ্যের কয়েক কোটি মানুষ উপকৃত হয়েছেন। আগামী সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্যে বসতে চলেছে দুয়ারে সরকার। একইভাবে সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা ভেবে দুয়ারে রেশন পরিষেবা চালু করেছিল সরকার। সেক্ষেত্রে বাড়িতে রেশন এর পূর্ণ সামগ্রী পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছিল সরকার। ঠিক তেমনি দুয়ারে শাড়ি কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মন্ত্রী। এর ফলে দরিদ্র এবং আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষ উপকৃত হবেন বলে মনে করছেন মন্ত্রী।    

 

Important Links

Whatsapp GroupJoin Now
Telegram ChannelJoin Now
Chakrir Khabor 24/7 AppDownload
Sharing Is Caring:

Leave a Comment